1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. chattogramerkhobor@gmail.com : Admin Admin : Admin Admin
রবিবার, ১১ জুন ২০২৩, ০৪:০৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
জীবন যুদ্ধ সংগ্রামের আরেক নাম সনিয়া ৮ জুন চট্টগ্রাম মহানগরে অটোরিকশা, টেম্পো‘র কর্ম বিরতি ঘোষণা। ঢাকা প্রেসক্লাবের নবনির্বাচিত মহিলা বিষয়ক সম্পাদকদের ঈদ পূর্ণমিলনী সভা সম্পুর্ন বোয়ালখালী বিএনপির উদ্যােগে জিয়াউর রহমানের শাহাদাত বার্ষিকীতে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল সিলেটে মাদকবিরোধী গণসচেতনতা ক্যাম্পিং, আলোচনা সভা ও কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত সুদের টাকার জেরে কলেজ ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকি, বিএনপি–জামায়াতের সন্ত্রাস, নৈরাজ্যের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল। চট্টগ্রামে ১৭ ব্যবসায়ী সিআইপি হলেন। পিবিআই বাগেরহাট জেলার আয়োজন ওয়ার্কশপ অনুষ্ঠিত জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশন এর চট্টগ্রাম মহানগর ও মিরসরাই উপজেলা কমিটি গঠন।

নগরীর বাকলিয়ায় পরকীয়ার জেরে স্ত্রীর হাতে স্বামী হত্যার অভিযোগ।

  • সময় বুধবার, ১৬ নভেম্বর, ২০২২
  • ১৪০ পঠিত

মনিরুল ইসলাম রিয়াদ, চট্টগ্রাম মহানগর প্রতিনিধিঃ

চট্টগ্রামের বাকলিয়া থানাধীন কালামিয়া বাজার এলাকায় সোমবার (১৪ নভেম্বর) বিকেলে স্ত্রীর পরকীয়ার জেরে একটি চাঞ্চল্যকর হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয় বলে জানা গেছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন বাকলিয়া থানা পুলিশ। নিহত ব্যক্তির নাম শুক্কুর আলী সোহেল (৩৫)। তার স্বজনদের দাবি, তিনি স্ত্রী কর্তৃক খুন হন।

নিহত শুক্কুর আলী পেশায় ব্যবসায়ী ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি বাঁশখালী থানাধীন জলদি এলাকার বদি আলম চেয়ারম্যানের বাড়িতে। বিয়ের পর সে পরিবার নিয়ে তার শ্বশুর বাড়ির পাশ্ববর্তী নগরীর কালা মিয়া বাজার এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন।

নিহতের ছোট ভাই মোহাম্মদ আব্বাস জানান, তার বড় ভাই শুক্কুর আলী বউ-বাচ্চা নিয়ে কালা মিয়া বাজার এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন। স্ত্রী-ই গলাটিপে তার ভাইকে হত্যা করেছে বলে জানান তিনি। তিনি জানান, শুক্কুরকে গলাটিপে হত্যা করা হতে পারে। নিহতের গলা ও বুকে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে বলে জানান আব্বাস।

নিহতের স্বজনরা জানান, স্ত্রীর পরকীয়ার জেরে স্বামীর সাথে পারিবারিক কলহের সৃষ্টি হয়। ফলে স্ত্রী কর্তৃক এ হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়। নিহত শুক্কুরের মেয়ে পুলিশকে স্ত্রী কর্তৃক হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে সাক্ষ্য দেয় বলে জানান তারা।

এ রহস্যজনক হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে সোমবার সন্ধ্যায় বাকলিয়া থানায় মামলা করতে গেলে মামলা নেয়নি বলে জানিয়েছেন নিহতের ছোট ভাই মোহাম্মদ আব্বাস।

এবিষয়ে বাকলিয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুর রহিম বলেন, ‘এটা মার্ডার, নাকি স্ট্রোকে মৃত্যু বিষয়টি আগে বের করতে হবে। আমরা বিষয়টি নিয়ে কাজ করছি। আগামীকাল এবিষয়ে বিস্তারিত জানতে পারবেন। এখনো আইনি প্রক্রিয়া চলমান আছে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
ওয়েবসাইট ডিজাইন: ইয়োলো হোস্ট