1. news@dainikchattogramerkhabor.com : Admin Admin : Admin Admin
  2. info@dainikchattogramerkhabor.com : admin :
বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০৫:৩৮ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
বঙ্গবন্ধু মানব কল্যাণ পরিষদ চট্টগ্রাম মহানগর পতেঙ্গা থানা ৫১ সংখ্যা বিশিষ্ট কমিটি অনুমোদন। বৈধ পথে রেমিট্যান্স পাঠিয়ে দুবাইয়ে পুরস্কৃত ৫১ বাংলাদেশি সিআইপি “আব্দুল কাদের জিলানী(রহঃ)”  -মোহাম্মদ আব্দুল হাকিম (খাজা হাবীব ) ব্রিটিশ আমল থেকে অভিনয় করছেন বাংলাদেশের এই অভিনেতা, চেনেন তো? বৃষ্টির পানিতে ডুবে গেছে চট্টগ্রামের বিভিন্ন এলাকা অফিসগামী মানুষ গুলো চরম ভোগান্তির মুখে পটিয়া উপজেলার হাইদগাঁও ইউনিয়নে ব্যাংক কর্মকর্তার বসত বাড়িতে চুরি, স্বর্ণালংকারসহ মালামাল লুট ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে আগেই বন্ধ করে দেওয়া হলো বঙ্গবন্ধু টানেল। ঘূর্ণিঝড় রেমাল মোকাবেলায়  চকরিয়া যুব রেডক্রিসেন্ট ইউনিট প্রস্তুত  প্রত্যয় শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক একাডেমির উদ্যোগে নজরুল জন্মজয়ন্তী উদযাপন সেলিম আহমেদ রাজুর মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন এশিয়ান নারী ও শিশু অধিকার ফাউন্ডেশনের মহাসচিব মোহাম্মদ আলী

সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর নিসচা লোহাগাড়ার স্মারকলিপি প্রদান

  • সময় মঙ্গলবার, ১১ অক্টোবর, ২০২২
  • ১১১ পঠিত

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ
জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবসের কর্মসূচির অংশ হিসেবে নিরাপদ সড়ক চাই লোহাগাড়া উপজেলা শাখার উদ্যোগে স্থানীয় প্রশাসনের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ এর বিধিমালা চূড়ান্ত ও অনুমোদন করার দাবি জানিয়ে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।
১০ অক্টোবর বেলা ১১টায় প্রধানমন্ত্রী বরাবরে প্রেরণের জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো : শরীফ উল্লাহ’কে স্মারক লিপি হস্তান্তর করেন নিরাপদ সড়ক চাই লোহাগাড়া উপজেলা শাখার উপদেষ্টা ও উপজেলা চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) এম.ইব্রাহিম কবির ও সভাপতি মোজাহিদ হোছাইন সাগর এর নেতৃত্বে নিসচা’র নেতৃবৃন্দরা।
স্মারক লিপি প্রদান অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন সহ-সাধারণ সম্পাদক সাত্তার সিকদার, হোছাইন মুহাম্মদ শারপু, দপ্তর সম্পাদক মো: আবু ছিদ্দিক, প্রকাশনা সম্পাদক জমির উদ্দীন, কার্যকরি পরিষদ সদস্য মো: ঈসা সোহাগ মিয়া, মো হেলাল উদ্দীন, নাজিম উদ্দীন নেয়াজ, নাছির উদ্দীন বাচ্চু ও ফাহাদ ইবনে হাশেম।
স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়, নিসচা’র দীর্ঘদিনের পথপরিক্রমায় সড়ক দুর্ঘটনারোধে যে বিষয়গুলো নিয়ে দাবি জানিয়ে আসছে তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে দেশ নতুন সড়ক আইন তৈরি ও বাস্তবায়ন করা। এর প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী আপনার উদ্যোগে সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ প্রণীত হলে জনগণের মধ্যে স্বস্থি ফিরে আসে, কিন্তু এই আইনটি আপনার নির্দেশনা থাকা সত্ত্বেও এখনো বাস্তবায়ন হয়নি। যার ফলে মূলত আইনটি অকার্যকর হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে এবং প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ কেউই কার্যকরী ভূমিকা রাখতে পারছেনা।
এছাড়া জাতিসংঘ ঘোষিত সড়ক দুর্ঘটনার অন্যতম ৫টি পিলার যথাক্রমে ১. সড়ক নিরাপত্তা ব্যবস্থাপনা, ২. ঝুঁকিমুক্ত যানবাহন, ৩. সচেতন সড়ক ব্যবহারকারী, ৪. সড়ক দুর্ঘটনায় পরবর্তী করণীয়, ৫. গাড়ি চালনার উপযুক্ত পরিবেশ বাস্তবায়নের কার্যকর উদ্যোগ নেয়া যাচ্ছে না।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনি এদেশের উন্নয়নে যথেষ্ট সোচ্চার এবং আপনার সর্বোচ্চ দিয়ে চেষ্টা করে যাচ্ছেন। এর ফলে দেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে বিশ্বের কাছে পরিচিতি লাভ করেছে। আপনি উদ্যোগ গ্রহণ করলে সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮-এ উপরোক্ত বিষয়গুলো অন্তর্ভুক্ত করে বিধিমালা প্রণয়ন ও অনুমোদন করলে এবং সে অনুযায়ী প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ সংশ্লিষ্ট সকল মহল কাজ করলে সড়ক দুর্ঘটনা নিরসনে কার্যকর ভূমিকা রাখা সম্ভব হবে, যার ফলে SDG-এর লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করা সম্ভব হবে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
ওয়েবসাইট ডিজাইন: ইয়োলো হোস্ট