1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Admin Admin : Admin Admin
বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ০৯:১০ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
সৈয়্যদা মাদিহা আল বাতুল গোল্ডেন A+ পেয়েছে প্রধানমন্ত্রীর জনসভার সফলতা আ জ ম নাছিরের অগ্নিপরীক্ষা চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহারকারী শ্রমিক কর্মচারী লীগের প্রস্তুতি সমাবেশে আ জ ম নাছির উদ্দীন। চট্টগ্রামে শেখ হাসিনার জনসভায় শ্রমিক কর্মচারীদের সর্বোচ্চ অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে -আবুল হোসেন আবু নুসরাত জাহান (ঝুমুর) এসএসসি পরীক্ষায় গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেলো। জঙ্গল সলিমপু’রে চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত ওসমান গনি। পটিয়া ৯৪ এর ফ্যামিলি মিলন মেলা ও মেজবান উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা সম্পন্ন গাউসে পাকের শিক্ষা পাঁচ ওয়াক্ত নামায যথাসময়ে আদায় করা- ফাতেহা-ই ইয়াজদাহুম মাহফিলে বক্তারা প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রামে আগমন উপলক্ষে সর্বস্তরের মানুষের নিকট লিফলেট বিতরণ করেন ফয়সাল বাপ্পি। বিএমএসএফ নিজস্ব গঠনতন্ত্রে পরিচালিত ট্রাস্টিনামা দলিলের অন্তর্ভুক্ত নয় -সাধারণ সভায় নেতৃবৃন্দ

চট্টগ্রামবাসী না চাইলে সিআরবিতে হাসপাতাল নয়ঃ রেলমন্ত্রী 

  • সময় বুধবার, ৩ নভেম্বর, ২০২১
  • ১১২ পঠিত

চট্টগ্রাম মহানগর প্রতিনিধিঃ

চট্টগ্রামবাসী না চাইলে সিআরবিতে কোনো হাসপাতাল নির্মাণ হবে না বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। তবে জলবায়ু সম্মেলন শেষে প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরলে এ বিষয়ে চূড়ান্ত  সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

সোমবার (১ নভেম্বর) দুপুরে রেল ভবনে চট্টগ্রামের  নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিদল রেলমন্ত্রীকে স্মারকলিপি দিতে গেলে তিনি এসব মন্তব্য করেন।

রেলমন্ত্রী বলেন, হাসপাতাল করতে হলে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (সিডিএ) থেকে নকশা অনুমোদন নিতে হবে। সিডিএ যদি নকশা না দেয় সেখানে হাসপাতাল হবে কিভাবে ? আর অন্যান্য সংস্থার অনুমোদনেও যদি আইনি বাধা থাকে তাহলে সেখানে কোনো কিছু করা সম্ভব নয়।সবচেয়ে বড় কথা, চট্টগ্রামবাসী না চাইলে সেখানে হাসপাতাল প্রকল্প হবে না।

 

 

তিনি বলেন, সিআরবিতে হাসপাতাল প্রকল্প রেল মন্ত্রণালয় গ্রহণ করেনি।এটি প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের অধীনে  সরকারি-বেসরকারি অংশিদারিত্বের   (পিপিপি) একটি প্রকল্প। বিনিয়োগও বেসরকারি। সুতরাং রেল মন্ত্রণালয়ের এখানে করার কিছুই নেই। নাগরিক সমাজের দেওয়া যাবতীয় তথ্য উপাত্ত আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে তুলে ধরবো। তিনিই এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেবেন। তবে আমার অভিমত হচ্ছে, আইন ও চট্টগ্রামবাসীর সেন্টিমেন্টের বাইরে যাওয়া ঠিক হবে না। আমরা যা কিছু করছি সবকিছুই  জনগণের কল্যাণে।

 

এসময় মন্ত্রীর কাছে প্রকল্পের যাবতীয় অসঙ্গতি তুলে ধরে তথ্য-উপাত্ত উপস্থাপন করেন ‘নাগরিক সমাজ- চট্টগ্রাম’ এর সদস্য সচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল।  তিনি মন্ত্রীকে বলেন, সিআরবি হচ্ছে চট্টগ্রামের ফুসফুস এবং সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের কেন্দ্রবিন্দু। এছাড়া ২০০৯ সালের গেজেট অনুযায়ী মহামান্য রাষ্ট্রপতি অনুমোদিত সরকার ঘোষিত ‘হেরিটেজ জোন’। এখানে কোনও ধরনের বাণিজ্যিক স্থাপনা হতে পারে না। তা আইনত নিষিদ্ধ। চাকসু জিএস শহীদ আবদুর রব, শহীদ মনোয়ার, শহীদ শেখ নজিরসহ ৯ শহীদের কবরও আছে এই সিআরবিতে। এখানে কোনো স্থাপনা হলে শহীদের কবর ধ্বংস হবে।

অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম  আরও বলেন, আমরা হাসপাতালের বিপক্ষে নই। হাসপাতাল চাই। তবে সিআরবিতে নয়। সিআরবি ছাড়া অন্যত্র হাসপাতাল হলে আমরা স্বাগত জানাবো।

স্মারকলিপি প্রদানকালে  উপস্থিত ছিলেন ‘নাগরিক সমাজ-চট্টগ্রাম’ এর কো-চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইউনুস, আওয়ামীলীগের উপ প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, জাসদ কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দিন বাবুল, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শাহজাহান চৌধুরী, চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক এএইচএম জিয়াউদ্দিন, নাগরিক সমাজ-চট্টগ্রাম’র যুগ্ম সদস্য সচিব ও বিএফইউজে’র যুগ্ম মহাসচিব মহসীন কাজী, শাহীন উল ইসলাম চৌধুরী, আবৃত্তিশিল্পী রাশেদ হাসান, প্রণব চৌধুরী, অ্যাডভোকেট রাশেদুল ইসলাম, অনির্বাণ দত্ত, অ্যাডভোকেট মাসুদুল আলম চৌধুরী, ব্যারিস্টার হেলালউদ্দিন ও ব্যারিস্টার হারুনর রশীদ।

সংশ্লিষ্ট সূত্রেে জানা যায়, গত বছর সিআরবি এলাকায় বর্তমান রেলওয়ে হাসপাতাল

ও সংলগ্ন খালি জমি, রেলওয়ে হাসপাতাল কলোনি স্টাফ কোয়ার্টারের ছয় একর জমিতে সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্বে (পিপিপি) প্রকল্পের চুক্তি সই ও অনুমোদন হয়। বেসরকারি ইউনাইটেড এন্টারপ্রাইজ কোম্পানি লিমিটেড নামের প্রতিষ্ঠান ছয় একর জমিতে ৫০০ শয্যার হাসপাতাল, ১০০ আসনের মেডিক্যাল কলেজ ও ৫০ আসনের নার্সিং ইনস্টিটিউট করতে চায়। প্রকল্প বাস্তবায়নের সময় ধরা হয় ১২ বছর। ইতিমধ্যে রেলওয়েকে আট কোটি টাকা পরিশোধ করেছে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানটি। ৫০ বছর পর হাসপাতালটি রেলওয়েকে হস্তান্তর করা হবে বলে চুক্তিতে উল্লেখ করা হয়।

অন্যদিকে, সিআরবিতে বেসরকারি উদ্যোগে হাসপাতাল ও মেডিক্যাল কলেজ নির্মাণ পরিকল্পনার বিরোধিতা করে আন্দোলনে নামে নগরবাসী। হাসপাতাল নির্মাণের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার না করা পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন তারা।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট