1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. chattogramerkhobor@gmail.com : Admin Admin : Admin Admin
বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৫:১৭ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন চট্টগ্রাম মহানগর দক্ষিণ’র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দীন। আনোয়ারার শিব ঠাকুর ও শীতলা মায়ের মন্দিরের বাৎসরিক মহোৎসব সম্পন্ন পটিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের বনভোজন দৈনিক সকালের সময়ের প্রীতি সম্মিলনী এশিয়ান আবাসিক স্কুলের সাফল্য ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি পেয়েছে রাকিব বাকলিয়ায় মাদকাসক্ত মানসিক ভারসাম্যহীন যুবকের আঘাতে নৈশ প্রহরী খুন বরইতলী সমাজ উন্নয়ন ফোরাম’র আয়োজনে সাধারণ জ্ঞান, কোরআন প্রতিযোগিতা ও ইসলামী সম্মেলন সম্পন্ন আনোয়ারায় মাটি কাটার দায়ে দেড় লাখ টাকা জরিমানা গ্রীন বাডস স্কুল এন্ড কলেজে প্রশিক্ষণ কর্মশালা মাতামুহুরি স্পোর্টিং ক্লাব আয়োজিত ফুটবল টুর্ণামেন্টে ফাইনালে আবির স্পোর্টিং ক্লাব

টানা গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত থাকায় দেশ উন্নয়নের মহাসড়কে: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

  • সময় রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৫২ পঠিত

মনিরুল ইসলাম, চট্টগ্রাম মহানগর প্রতিনিধিঃ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, টানা গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত আছে বলে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে দেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে। বিএনপি গণতন্ত্রে বিশ্বাসী নয়। তাই তারা অন্যভাবে ক্ষমতায় আসতে চায়। তারা চায় এমন কেউ আসুক, যারা বিএনপিকে নাগরদোলায় করে ক্ষমতার বসিয়ে দেবে। আমরা সৃষ্টি করি, তারা ধ্বংস করে।

রোববার (৪ ডিসেম্বর) বিকেলে ঐতিহাসিক পলোগ্রাউন্ডে চট্টগ্রাম মহানগর এবং উত্তর-দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ করেছি আমি। আর সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে অপপ্রচার করছে তারা। একটানা গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত আছে বলে দেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে। এসময় তিনি উপস্থিত সবাইকে হাত তুলে আবারো নৌকায় সমর্থন অব্যাহত রাখার ওয়াদা করান।

বিএনপির আন্দোলনের সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০১৩ থেকে শুরু করল অগ্নিসন্ত্রাস। যাদের মধ্যে মনুষত্ব আছে তারা কী এভাবে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করতে পারে? তাদের আন্দোলন হচ্ছে মানুষ খুন করা। বিএনপির দুটি গুণ, ভোট চুরি আর মানুষ খুন। এসময় ভোট পাবে না বলে বিএনপি নির্বাচনে না গিয়ে সরকার উৎখাত করে ক্ষমতা দখল করতে চায় বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি।

তিনি বলেন, ওরা ভোটে যেতে চায় না। জিয়াউর রহমান যেমন জাতির পিতাকে হত্যা করে, সংবিধান লঙ্ঘন করে, সেনা আইন লঙ্ঘন করে ক্ষমতা দখল করেছিল। ওদের ধারণা ওইভাবেই তারা ক্ষমতায় যাবে। গণতান্ত্রিক ধারা তারা পছন্দ করে না।

শেখ হাসিনা বলেন, অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে বলতে হয়, সেই ১০ ডিসেম্বর বিএনপির খুব প্রিয় একটা তারিখ। বোধ হয় পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর পদলেহনের দোসর ছিল বলেই ১০ ডিসেম্বর তারা ঢাকা শহর নাকি দখল করবে। আর আওয়ামী লীগ সরকারকে উৎখাত করবে।

তিনি বলেন, আমি তাদের বলে দিতে চাই, খালেদা জিয়া ৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি জনগণের ভোট চুরি করে ক্ষমতায় এসেছিল। আর ভোট চুরি করে ক্ষমতায় এসেছিল বলেই তাকে বাংলাদেশের মানুষ মেনে নেয়নি। সারা বাংলাদেশ ফুঁসে উঠেছিল। জনতার মঞ্চ করেছিলাম আমরা। খালেদা জিয়া বাধ্য হয়েছিল পদত্যাগ করতে। দেড় মাসও যায়নি, খালেদা জিয়া পদত্যাগে বাধ্য হয়েছিল। সে কথা বিএনপির মনে রাখা উচিত। জনগণের ভোট যদি কেউ চুরি করে বাংলাদেশের মানুষ তা মেনে নেয় না। ওরা তা ভুলে গেছে। বিএনপি-জামায়াত, যুদ্ধাপরাধী, স্বাধীনতাবিরোধীরা যাতে আর ক্ষমতায় আসতে না পারে সেজন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

২০১৩, ১৪, ১৫ সালে বিএনপির আন্দোলনের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, অগ্নি সন্ত্রাস করে মানুষ হত্যা, মানুষকে অগ্নিদগ্ধ করার জবাব একদিন খালেদা জিয়া-তারেক জিয়াকে দিতে হবে। এর হিসাব একদিন জনগণ নেবে। রিজার্ভ এবং ব্যাংকে টাকা নেই বলে গুজব ছড়ানো হচ্ছে। গুজব ছড়ানো, মিথ্যা বলা এসব হচ্ছে তাদের স্বভাব। এসব গুজবে মানুষকে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট