1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. chattogramerkhobor@gmail.com : Admin Admin : Admin Admin
মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৯:৫৮ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
বাংলাদেশ ঐক্য পার্টি’র তৃতীয় বর্ষে পদার্পণ ও দেশ নিয়ে দলটির ভাবনা চট্টগ্রাম একাডেমির পরিচালনা পরিষদের সভা অনুষ্ঠিত সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুস সবুর’র কবরে তসলিম উদ্দিন রানার শ্রদ্ধা নিবেদন  খাগড়াছড়ির তিন সাংবাদিকসহ সাতজনের বিরুদ্ধে ইউপি চেয়ারম্যানের মামলা কবি মোঃ নেছার’র ‘পরাণ’ কাব্যগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন জমকালো আয়োজনে শেষ হলো ব্যাচ ৯৪ বিডি’র ফ্রেন্ডস ফেস্টিভ্যাল ২০২৩ বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন চট্টগ্রাম মহানগর দক্ষিণ’র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দীন। আনোয়ারার শিব ঠাকুর ও শীতলা মায়ের মন্দিরের বাৎসরিক মহোৎসব সম্পন্ন পটিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের বনভোজন দৈনিক সকালের সময়ের প্রীতি সম্মিলনী

অপরিকল্পিত আর সমন্বয়হীনতার জেরে জোয়ারে ভাসছে বাকলিয়া

  • সময় সোমবার, ২০ জুন, ২০২২
  • ১৩১ পঠিত

আব্দুল সাত্তারঃ
১৭,১৮,১৯ নং ওয়ার্ড মিলে বৃহৎ বাকলিয়া। অত্যাধিক বৃষ্টি এবং জোয়ারের পানিতে অতিষ্ঠ বাকলিয়াবাসী। ডিসি রোড, কালাম কলোনী, শান্তিনগর, রসুলবাগ আবাসিক, বউবাজার, ময়দার মিল, আলিয়া স্টোর বিল্ডিং নয়া মসজিদ এবং পূর্ব বাকলিয়ায় অধিকাংশ নিম্ন অঞ্চল বৃষ্টি এবং জোয়ারের পানিতে তলিয়ে গেছে।

এসব এলাকার বৃষ্টির পানি চাক্তাই ডাইভারশন খাল হয়ে কর্ণফুলী নদীতে মিলিত হয়। রোববার রাত বারোটা পর্যন্ত শেষ ২৪ ঘন্টায় নগরীতে সর্বোচ্চ ১৭৮ দশমিক ৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়।

এলাকাবাসী মনে করেন অপরিকল্পিত নগরায়ন এবং খালের পানি যথাযথ নিষ্কাশনের ব্যবস্থা না করায় জোয়ারের পানিতে ভুগছে অত্র এলাকার মানুষ।
মোঃ আলমগীর তার ভেরিফিকেশন ফেসবুক আইডিতে লিখেন ১৭নং ওয়ার্ড পশ্চিম বাকলিয়া ১ নং গলির পশ্চিম কামরা হতে শান্তিনগর বসবাসকারী সকল বাসিন্দা বর্তমানে পানিবন্দি, আল্লাহ সকলকে হেফাজত করুক।
১৮ নং ওয়ার্ডের মোঃ মোরশেদ মেয়রের দৃষ্টি আকর্ষণ করে লিখেন বাকলিয়াবাসী কি পানি থেকে মুক্তি পাবে না ।
অত্র এলাকার স্থানীয় বাসিন্দা আরমান খান রানা চট্টগ্রামের খবর পোর্টালের রিপোর্টার কে বলেন, চাক্তাই খাল বর্ষার আগে খননসহ যথাযথ রক্ষণাবেক্ষণ ও কর্ণফুলী ড্রেজিং বাড়াতে হবে এবং সুইচগেট বর্ষার আগে খুলে দিতে হবে। চট্টগ্রামে জলাবদ্ধতা নিরসনে সেনাবাহিনীর অধীনে যে প্রকল্পটি আছে সেটি দ্রুত সময়ে শেষ করলে নগরবাসীর জলাবদ্ধতা থেকে অনেকটা মুক্তি পাবে। আর আমরা নাগরিক হিসেবে কিছু সচেতনতা আছে যেমন আমরা যত্রতত্র পলিথিন ছুঁড়ে মারব না এবং পলিথিন ও প্লাস্টিক এর ব্যবহৃত জিনিসপত্র যথাযথ স্থানে ফেলবো। রাস্তা উঁচু করে দেওয়াটা তো পরিকল্পিত কাজ না, সমস্যা চিহ্নিত করে সমন্বয় ভাবে একটি দীর্ঘস্থায়ী সমস্যার সমাধানে পৌঁছাতে হবে এবং এইসব বিষয়ে নাগরিকদের সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে।
বাকলিয়ায় অধিকাংশ স্থানে কোমর সমান পানি হওয়াই দোকানপাট এবং হাটবাজার বন্ধ রয়েছে এবং মানুষের নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের ক্রয়ের ব্যাঘাত ঘটছে।
একাধিক ব্যক্তি ও সংগঠন নিজ নিজ অবস্থান থেকে এসব অসহায় ও নিম্ন শ্রেণীর মানুষদের খাদ্যদ্রব্য দিয়ে পাশে দাঁড়িয়েছেন।
এই বিষয়ে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর শহিদুল আলমকে একাধিকবার ফোন করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট