1. news@dainikchattogramerkhabor.com : Admin Admin : Admin Admin
  2. info@dainikchattogramerkhabor.com : admin :
বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১০:৫৯ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
কারবালার যুদ্ধ  -মুহাম্মদ আব্দুল হাকিম (খাজা হাবীব) চট্টগ্রামের শ্রেষ্ঠ ওসি হলেন জোরারগঞ্জ থানার আব্দুল্লাহ আল হারুন শ্রেষ্ঠ শহীদ ইমাম হুসাইন(রা:) –  মুহাম্মদ আব্দুল হাকিম (খাজা হাবীব) রোটারি ক্লাব অব আন্দরকিল্লা র ২০২৪-২৫ রোটাবর্ষের প্রথম সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত। লায়ন্স ক্লাব অব চিটাগাং ফটিকছড়ির উদ্যোগে সূর্যগিরি আশ্রমে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ সিলেট বিভাগে বিসিএ ফাউন্ডেশন ইউকে উদ্যোগে বন্যার্তদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ পটিয়ায় এপেক্স ক্লাবের বৃক্ষ রোপণ ইউএনও একটি গাছ লাগিয়ে মানুষের জীবন বাঁচানো যায়। সাংবাদিক জুয়েল খন্দকারের বিরুদ্ধে কাউন্সিলর সাহেদ ইকবাল বাবুর মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে প্রতিবাদ সভা অনুষ্টিত “বীরশ্রেষ্ঠ আলী আকবর” -মোহাম্মদ আব্দুল হাকিম (খাজা হাবীব ) রোটারি ক্লাব অব আন্দরকিল্লা ‘র কমিটি গঠন

অবশেষে মুখ খুললেন শারুন, আনভীরের সাথে মতবিরোধ

  • সময় বৃহস্পতিবার, ৫ আগস্ট, ২০২১
  • ২৩৯ পঠিত

মুখ খুলেছেন চট্টগ্রাম চেম্বার ও চট্টগ্রাম আবাহনীর পরিচালক হুইপপুত্র শারুন চৌধুরী। মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) সন্ধ্যায় ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডিতে এক পোস্টে নিজের অবস্থান তুলে ধরেছেন আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা উপকমিটির সদস্য শারুন।

বসুন্ধরা গ্রুপের এমডি সায়েম সোবহান আনভীর এর সাথে আমার অনেক বিষয়ে মতবিরোধ রয়েছে। এই মতবিরোধের জের ধরে আমি তাঁর আক্রোশের শিকার হয়েছি। এই সুবাধে বসুন্ধরা গ্রুপের মালিকানাধীন কালের কন্ঠ,বাংলাদেশ প্রতিদিন, বাংলানিউজ২৪, ডেইলি সান, নিউজ২৪ টিভি ও তাদের পেইড কয়েকটি অনলাইন পত্রিকা প্রায় ২ বছর ধরে আমি, আমার পিতা হুইপ সামশুল হক চৌধুরী এমপি ও আমাদের পরিবারের বিরুদ্ধে জঘন্য মিথ্যাচারে লিপ্ত। সাংবাদিকতার নীতি নৈতিকতা বিবর্জিত বসুন্ধরার মালিকানাধিন মিডিয়াগুলোর এসব হাস্যকর মিথ্যাচার দেশের মানুষ ঘৃনাভরে প্রত্যাখান করছে। ফেসবুক, ইউ টিউবে টাকা খরচ করে বুস্ট করে স্পনসরড এড দিয়ে একের পর এক এসব মিথ্যা সংবাদ ছড়ানো হচ্ছে। আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল ও তাদের এসব প্রোপাগান্ডা ও নির্লজ্জ মিথ্যাচারের বিরুদ্ধে আমরা লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছি এবং লকডাউনের পরেই কঠোর আইনগত ব্যাবস্থা নিবো ইনশাল্লাহ।বসুন্ধরার মিডিয়াতে কর্মরত সম্মানিত সাংবাদিকদের উপর আমাদের কোন আক্ষেপ নেই কারন উনারা মিডিয়া মালিকের ইচ্ছার বিরুদ্ধে কিছু করতে পারেননা এটাই স্বাভাবিক। বাংলাদেশের আইনে যেহেতু মামলা করলে প্রকাশক , সম্পাদক ও সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে করতে হয় তাই তাদের বিরুদ্ধে কোন মামলা দিতে আমাদের বিবেক বাধা দিচ্ছে, কারন আমরা মনে করি মালিকের নির্দেশে অমান্য করার মতো তাদের ক্ষমতা নেই। কিন্তু আর কতো ??এসব পাত্তা না দিয়ে চুপ থেকে সহ্য করেছি এখনো করে যাচ্ছি কারন এই মিডিয়া মালিকের জঘন্য মিথ্যাচার ও ষড়যন্ত্রের রিএকশনে সম্মানিত সাংবাদিক সমাজকে আমরা প্রতিপক্ষ করতে চাইনা। তাই সকলের প্রতি অনুরোধ বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা করুন। কারো সাথে মতোর অমিল হলেই তার বিরুদ্ধে বসুন্ধরার নিজের মালিকানাধীন মিডিয়া ও বিজ্ঞাপনের জোরে সিন্ডিকেটেড নিউজ ও অপপ্রচারের এই নোংরামী সকলে মিলে প্রতিরোধ করতে হবে। মহান আল্লাহ তাদের এসব নোংরা মনমানষিকতা দুর করে বিবেককে জাগ্রত করুক এই দোয়া করি। বিজয় আমাদের হবেই ইনশাল্লাহ।

জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
ওয়েবসাইট ডিজাইন: ইয়োলো হোস্ট