1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Admin Admin : Admin Admin
বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১০:৪৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
সৈয়্যদা মাদিহা আল বাতুল গোল্ডেন A+ পেয়েছে প্রধানমন্ত্রীর জনসভার সফলতা আ জ ম নাছিরের অগ্নিপরীক্ষা চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহারকারী শ্রমিক কর্মচারী লীগের প্রস্তুতি সমাবেশে আ জ ম নাছির উদ্দীন। চট্টগ্রামে শেখ হাসিনার জনসভায় শ্রমিক কর্মচারীদের সর্বোচ্চ অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে -আবুল হোসেন আবু নুসরাত জাহান (ঝুমুর) এসএসসি পরীক্ষায় গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেলো। জঙ্গল সলিমপু’রে চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত ওসমান গনি। পটিয়া ৯৪ এর ফ্যামিলি মিলন মেলা ও মেজবান উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা সম্পন্ন গাউসে পাকের শিক্ষা পাঁচ ওয়াক্ত নামায যথাসময়ে আদায় করা- ফাতেহা-ই ইয়াজদাহুম মাহফিলে বক্তারা প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রামে আগমন উপলক্ষে সর্বস্তরের মানুষের নিকট লিফলেট বিতরণ করেন ফয়সাল বাপ্পি। বিএমএসএফ নিজস্ব গঠনতন্ত্রে পরিচালিত ট্রাস্টিনামা দলিলের অন্তর্ভুক্ত নয় -সাধারণ সভায় নেতৃবৃন্দ

ভাইরাল জোয়ারে লুন্ঠিত বঙ্গ – শাহাদাত হোসেন ফাহিম

  • সময় বুধবার, ১৬ নভেম্বর, ২০২২
  • ৮২ পঠিত

উজবুক টাইপের গান আর কথা বলা হিরো আলমের ফেসবুক পেজের ফলোয়ার সংখ্যা ২ মিলিয়ন। টিকটকে এসে মুজরা করা টিকটকার দের ফলোয়ার সংখ্যা জন প্রতি কয়েক লক্ষাধিক। অশ্লীল কথা আর অশ্লীল কনটেন্ট বানানো টিকটকার আর ইউটিবার সমাজে সেলিব্রিটি। কিন্তু একজন ভালো মানের লেখক, কবি কিংবা শিক্ষক যারা প্রতিনিয়ত শিক্ষা দান করে যাচ্ছে তাদের নাম কেউ শুনেছে কিনা জানা নেই।
হাতা গোনা কয়েক জন ছাড়া।
এই ভাবে হাজারো ফেসবুক ইউটিউবে সেলিব্রিটি আছে যাদের ফেসবুক ফলোয়ার আর ইউটিউব সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা আকাশ চুম্বি অথচ তাদের কথা বলার ধরন টা পর্যন্ত শুদ্ধ নয়।
কিছু দিন আগে এক চোর ফেসবুকে একটা উজবুক টাইপের কথা বলে ভাইরাল হয়। নাম তার…..। কিন্তু তাজ্জবের বিষয় হচ্ছে ভাইরাল হওয়ার কিছু দিন পর সে একটা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয় তা ও একটি বিদ্যালয়ের অনুষ্ঠান। চিন্তা করেছেন আমাদের অবস্থানটা কোথায়.? আমরা কত টুকু পদস্থলিত হয়েছি.?
প্রতিনিয়ত আমরাই বিনোদনের জন্য সমাজে অন্যায় এবং অযোগ্য দের আশ্রয় আর প্রশ্রয় দিচ্ছি। আসলে আমরা বিনোদন খেকো একটা জাতিতে পরিণত হয়েছি। যে বাঙ্গালী ১৯৫৪ সালে ভাষার জন্য জীবন দিয়েছে, ৭১ এ স্বাধীনতা সংগ্রাম করেছে সে বাঙ্গালী এখন টিকটকে মুজরা করাতে ব্যস্ত।
জাতি হিসেবে আমরা এখন মস্তিষ্কে অশ্লীল আর মনে অস্থির হয়ে গেছি। আমাদের মস্তিষ্কে আর মনে এখন ভালো কিছুর আকাঙ্খা জন্মে না। জন্মে শুধু বিনোদনের আশা। সব কিছুতেই আমরা বিনোদন খুঁজি।
বর্তমানে বাংলাদেশের প্রায় ৯৯% মানুষের মোবাইলে টিকটকে নামক অ্যাপ টি আছে যেখানে ছোট হতে শুরু করে বৃদ্ধ পর্যন্ত সবাই মুজরা করাতে ব্যস্ত। অশ্লীলতার চরম পর্যায়ে আমরা উপনীত হয়েছি। নারী নাচে পুরষ বাহঃ বাহঃ করে আর পুরুষ নাচে নারী বাহঃ বাহঃ দেয় এই অবস্থায় আছি।
সমাজে যিনি ভালো ভাবে চলে তার কোনো মূল্য নাই কিন্তু টিকটকার সমাজের সেলিব্রিটি তাদের সাথে সাক্ষাৎ করতে ও মানুষের লাইনে দাঁড়াতে হয়।
আমাদের দেশে বর্তমানে খেটে কৃষি কাজ করা কিংবা শিক্ষা অর্জন করে ব্যাংকে জব করার চেয়ে অশ্লীল কিছু একটা করে কিংবা টিকটকে মুজরা করে ভাইরাল হওয়া সহজ।
আমাদের সমাজে সবাই শুধু সরকার কিংবা প্রশাসনের দোষ দেয় কিন্তু আপনি নিজে দেশের জন্য কী করেছেন সেটা কী কখনো চিন্তা করেছেন.? আমরা দেশকে দিয়েছি শুধু বস্তায় বস্তায় অশ্লীলতা।
আসলে এমন একটা সমাজে বাস করি যেখানে সুঘ্রাণ খুব কম ছড়াই কিংবা তা ছড়াতে দেওয়া হয় না। ছড়াই শুধু অশ্লীলতা, নোংরামি আর বিনোদন। অবশেষে একটি কথায় বলতে চাই,
“ যত সব অঘটন মোর এই দেশে রটে যায়
ভাইরাল হওয়ার অন্ধ নেশায় মোর এই বঙ্গ ভেসে যায়
ভাইরাল হওয়ার অন্ধ নেশায় ভাসছে এ দেশ মোর
লাঞ্চিত মোরা সদা সর্বদা যদি না কাটে এই ছলনার ঘোড় ”

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট